কীটপতঙ্গ এবং ইঁদুরের হাত হাত থেকে ফসলকে রক্ষা করতে নতুন লেজার প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছেন লিভারপুলের জন মুরস ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক। এই লেজার প্রযুক্তি ইঁদুর এবং কীটপতঙ্গের জন্য আতঙ্ক সৃষ্টি করে বলে জানানো হয়।

চলতি বছরের নভেম্বরে স্কটল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস এবং স্পেনে এই প্রযুক্তি পরীক্ষামূলকভাবে চালানোর কথা রয়েছে, জানিয়েছে বিবিসি।

কৃষি খাতে এই উদ্ভাবন অত্যন্ত জরুরি ছিল বলে মন্তব্য করা হয়েছে ন্যাশনাল ফারমার্স ইউনিয়ন (এনএফইউ)-এর পক্ষ থেকে। গবেষণায় সহায়তা করতে এই প্রকল্পে ১৭ লাখ ইউরো তহবিল দিয়েছে ইউরোপিয়ান কমিশন।

নতুন এই প্রযুক্তির নাম দেওয়া হয়েছে ‘লেজার ফেন্স’। ইতোমধ্যেই এটি তৈরির কাজ শেষ হয়েছে বলেও জানানো হয়।

এই প্রকল্পের সমন্বয়কারী ড. অ্যালেক্স ম্যাসন বলেন, “লেজারটি বানানো হয়ে গেছে। অনেকগুলো পরিস্থিতিতে ব্যবহারের জন্য এটি একটি বাণিজ্যিক পণ্য। কিন্তু আমরা কৃষি খাতে একে ব্যবহার করতে চাচ্ছি।”

 

তিনি আরও বলেন, “ইতোমধ্যেই পাখির উপর এটি খুব ভালো কাজ করেছে। আমরা আশা করছি ইঁদুর, শিয়াল এবং খরগোশের ক্ষেত্রেও এটি ভালোভাবে কাজ করবে।”

“ব্রিটিশ বিজ্ঞানের উন্নতিতে কৃষি-প্রযুক্তিতে সহায়তা এবং তহবিল চলতে থাকাটা জরুরী এবং এই উদ্ভাবন আরও বেশি কৃষি ব্যবসার আগ্রহ যোগাবে,” বলেন এনএফইউ-এর প্রধান বিজ্ঞান উপদেষ্টা ড. হেলেন ফেরিয়ার।

ফসল রক্ষা করতে কীটনাশকের ব্যবহার অনেক ক্ষেত্রেই পাখির প্রাণ নিয়ে নেয়। সে ক্ষেত্রে এই লেজার প্রযুক্তি পরীক্ষার এলাকায় ৫০ শতাংশ ক্ষতি কমাবে। আর পাখির প্রাণনাশের হুমকিও ৮০ শতাংশ কমাবে।

Advertisements